নিজের চাচাতো বোনকে সারা জীবন কাছে রাখতে নিজ স্বামীর সঙ্গে বিয়ে

নিজের চাচাতো বোনকে সারা জীবন কাছে রাখতে নিজ স্বামীর সঙ্গে বিয়ে
পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুলতানের এক নারী ও তার স্বামী এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বিয়ের পরে নারী অতি প্রিয় আপন চাচাতো বোনকে চোখের আড়াল করে থাকতে পারছিলেন না বলে তাই নিজে নিলেনা চমকানো সিদ্ধান্ত যা সমাজ মানতে নারাজ
পাকিস্তানের দুনিয়র নিউজ টিভি থেকে এ খবর জানা যায়, ছোটবেলা থেকে একে অপরের সুখ দুঃখের সাথী ছিল তার চাচাত বোন কিন্তু বিয়ের পরপরই অতি প্রিয় সেই চাচাতো বোন কি. হয়ে যান চোখের আড়াল হয়ে যায়, এ তে একাকীত্ব অনুভব করছিলেন তারই বিবাহিত বোন ।
তাই তিনি নিজেই তার চাচাতো বোনকে তার নিজের স্বামীর সঙ্গে বিয়ে দিলেন ,কিন্তু বিধি বাম তাদের এই চমকপ্রদ সিদ্ধান্তে ক্ষেপে গেছে দুই বোনের পরিবার ও স্থানীয় সমাজের সকল লোকজন।
পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুলতানের শামিজাবাদ এলাকার ফারাজ নামে এক টিন এজার প্রায় দেড় মাস আগে বিয়ে করেন আলিনা নামের এক তরুণীকে, এরপর নববধূ আলিনা তার চাচাত বোন আলিস্মমাকেও তার নিজ স্বামীর সঙ্গে স্বামীর সঙ্গে বিয়ে দেন ।
এদিকে দুই বোনের স্বামী ফারাজ জানান , তার স্ত্রীদের আত্মীয়-স্বজনেরা তাকে খুজতাছে এবং তাকে লাগাতার হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে, এরইমধ্যে আলিনা এবং আলীস্মারপরিবার মামলা করছে তাদের স্বামী ও তাদের নাম।
ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আলিনা বলেন তা নিচের চাচাতো বোনকে সে অনেক ভালোবাসে ছোটবেলা থেকেই একজন আরেকজনকে না দেখে থাকতে পারছে না তাই তোকে সবসময় কাছে পাওয়ার জন্য নিজের স্বামীর সঙ্গে চাচাতো বোনের বিয়ে দিতে সিদ্ধান্ত নেয়, তাস সদ্য বনে যাওয়ার সতীন আলিস্মা ও আলিনা মত সিম কোথায় সাংবাদিকদেরকে বলেন।
আলিমা আরও জানান ছোটবেলা থেকে দুই চাচাতো বোন মানিকজোড় মত একইসঙ্গে বড় হওয়া বেড়ে ওঠা লেখাপড়া করা উঠা-বসা খাওয়া-দাওয়া গোসল করুম স্কুল কলেজ ভার্সিটির সবকিছুই তারা একসঙ্গে করেছেন তাই বড় বোনের বিয়ে হওয়ার পরে ছোট বোন এবং বড় বোন দুইজন দুই জায়গায় চলে যাওয়ার কারণে তারা একে অপরের খুব বিষণ্নতায় ভুগতে থাকে, এমনকি দুজন দুজনকে না দেখে বেঁচে থাকাই মুশকিল হয়ে দাঁড়িয়েছিল। তাই আলীনাই তার স্বামীকে তার ছোট বোন আলীস্মা বিয়ে করার কথা সেই তাকে বলে।

     More News Of This Category

ফেসবুক