ঠাকুরগাঁওয়ে ভ্রাম্যমান আদালত অবৈধ দুই ইটভাটা মালিককে জরিমানা।

Spread the love

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ

পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসন প্রদত্ত লাইসেন্স ছাড়াই অবৈধভাবে ইট তৈরি করায় ঠাকুরগাঁওয়ে একটি ভাটায় উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত । এছাড়া কয়লার পরিবর্তে জ্বালানি হিসেবে কাঠ ব্যবহার করায় আরেক ইটভাটার মালিককে জরিমানা করা হয় । ১১ জানুয়ারি সােমবার বিকেলে সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গােলাম রব্বানী সরদারের উপস্থিতিতে দুটি ইট ভাটায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয় ।পৃথক অভিযানে সদর উপজেলার নারগুন ইউনিয়নের ‘ এমএইচ ব্রিকস ’ ইটভাটার মালিক মােহাম্মদ আনােয়ারকে এক লাখ টাকা জরিমানা , অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদণ্ড ও জামালপুর ইউনিয়নের ‘ থ্রি স্টার ব্রিকস ’ ইটভাটার মালিক আব্দুল আজিজকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় । অভিযান পরিচালনার সময় রংপুরের পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মােহাম্মদ ফারুক । ছিলেন । জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গােলাম রব্বানী সরদার বলেন , ‘ এমএইচ ব্রিকস ‘ ইট ভাটাটি পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের কোনাে রকম লাইসেন্স ছাড়াই পরিচালিত হয়ে আসছে । এতে ইটভাটার ধোঁয়া ও গরম হাওয়ায় পরিবেশ দূষিত হচ্ছে । স্থানীয়দের এমন অভিযােগের প্রেক্ষিতে সােমবার বিকেলে এমএইচ ব্রিকস ‘ ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হয় । অভিযােগের সত্যতা পাওয়ায় ভাটার মালিক মােহাম্মদ আনােয়ারকে আটক করা হয় । তিনি পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র বা জেলা প্রশাসন থেকে নেয়া লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হলে ভ্রাম্যমান আদালত গঠন করে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয় । পাশাপাশি অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয় । এছাড়া ভাটার আগুন নিভিয়ে দেয়াসহ কিছু অংশ ভেঙে দেয়া হয় ।অপরদিকে সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন , জামালপুর ইউনিয়নের ‘ থ্রি স্টার ব্রিকস ‘ ইটভাটায় কয়লার পরিবর্তে কাঠ ব্যবহার করার অভিযােগে অভিযান পরিচালনা করা হয় । ওই ভাটার মালিক আব্দুল আজিজকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করাসহ সতর্ক করা হয় । পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র এবং জেলা প্রশাসন থেকে লাইসেন্স গ্রহণ না করে অবৈধভাবে নির্মিত ও প্রতিনিয়ত দূষণ সৃষ্টিকারী অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা প্রশাসক ড . কেএম কামরুজ্জামান সেলিম

     More News Of This Category

ফেসবুক