কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে পুলিশের এ এস আইয়ের গুলিতে তিনজনের মৃত্যু

Spread the love

কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ
কুষ্টিয়া শহরের কাস্টমস মোড়ে প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীর গুলিতে বাবা-মা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে।আজ রোববার (১৩ জুন) বেলা ১১টায় এ হত্যার ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় পুলিশ হামলাকারী পুলিশের এএসআই সৌমেন কুমারকে আটক করেছে বলে জানা গেছে। তবে নিহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।
কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিনজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসার পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একে একে তিনজনেই মারা যান। নিহতরা হলেন- শাকিল, আসমা এবং আসমার সন্তান রবিন।
কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, বেলা ১১টার দিকে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের কাস্টমস মোড়ে তিনতলা একটি ভবনের সামনে এক নারী চার বছরের ছেলে শিশুকে নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন।
এ সময় সেখানে এক পুরুষ ছিলেন। হঠাৎ এক ব্যক্তি প্রথমে ওই নারীর মাথায় গুলি করেন। এরপর পাশে থাকা পুরুষের মাথায় গুলি করেন।
ভয়ে ছেলে শিশুটি দৌঁড়ে পালাতে গেলে তাকেও ধরে মাথায় গুলি করা হয়। আশপাশের লোকজন গুলি করা ব্যক্তিকে ধরতে গেলে তিনি দৌঁড়ে তিনতলা ভবনের ভেতরে ঢুকে পড়েন।
এরপর লোকজন জড়ো হয়ে ওই ভবন লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নারীকে মৃত ঘোষণা করেন। অস্ত্রপচার কক্ষে গুলিবিদ্ধ পুরুষ ও শিশুর মৃত্যু হয়।
কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সহকারী পুলিশ পরিদর্শক (এএসআই) সৌমেন কুমারকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আটক সৌমেন সম্প্রতি হালসা ক্যাম্প থেকে খুলনার ফুলতলায় বদলি হন।

     More News Of This Category

ফেসবুক