রূপসার পুটিমারীতে পানি বন্দী শতঘর, ফসলের ব্যাপক ক্ষতি, সুইচগেট নির্মানের দাবী

Spread the love

রূপসা প্রতিনিধিঃ
খুলনা জেলার রূপসা উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নে ইসলামপুর পুটিমারি গ্রামটি অবস্থিত। পুটিমারি গ্রামের দক্ষিন পাড়া ঘেষেই আঠারবেঁকী নদী। বছর কয়েক আগে আঠারবেঁকি নদী পলিমাটি জমে তার অস্তিত্ত্ব হারিয়ে ছিল। সরকারী ভাবে কিছুদিন আগে নদীটি পুনরায় খনন করার ফলে ফিরে পেয়েছে নদীটি হারানো গৌরব। নদীটি খননের ফলে পুটিমারি দক্ষিন পাড়ার জনসাধারনের চলাচলের একমাত্র রাস্তাটি নদীর তীর থেকে নিচু হয়ে যায়। ইসলামপুর পুটিমারি গ্রামের চৌরাস্তা থেকে আলাইপুর গ্রামের শিকদার ব্রিকস ফিল্ডের পাস দিয়ে আলাইপুর গ্রামের সাথে সংযুক্ত মাটির রাস্তাটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীন অবদা নামের পিচ ঢালাই রাস্তা ও পুটিমারি আলাইপুর সংযুক্ত কাচা রাস্তার মাঝে কয়েক শত বিঘা জমির বেশির ভাগই এ এলাকার দিন মজুর মানুষের জীবিকা নির্বাহের এক বড় উৎস, মাছ চাষ, কৃষি জমি সহ প্রায় শতাধিক নিম্নবিত্ত পরিবারের বসবাস এ মহল্লায়। যাদের জীবন কাটে কখনো ইটের ভাটায়, কখনো মাছের ঘেরে আবার কখনো ফসলি জমিতে দিন মজুরের কাজ করে। এ মহল্লার পাসঘেষে আঠারবেঁকী নদী পুনরাই খনন করার পর অত্র এলাকা সহ আশেপাসের জলাবদ্ধতা নিরশনের এক মাত্র খাল ভরাট হয়ে সমতল ভূমিতে পরিনত হয়েছে এবং কিছু ভূমি দস্যু ও জমি দখলদারদের কারনে খালটি এখন বিলিন হয়ে গেছে। এর ফলে শত শত মানুষ বছরের পর বছর পানিতে ডুবে হাবুডুবু খাচ্ছে। পুটিমারি বিল ও বাসুয়াখালী বিলের লক্ষ লক্ষ একর ফসলি জমি এখন জলাবদ্ধ আবস্থায় পড়ে থাকে। কিছুদিন আগে মুজিব শত বর্ষ উপলক্ষে ১২ টি ঘর আঠারবেঁকী নদির সাথে এই চাহর খালি খালের মিলন স্থানের পাশেই গড়ে উঠেছে। জলাবদ্ধতার কারনে ফসল ফলাতে না পেরে এবং নদীর সাথে বিলঝিল ও খালের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার ফলে দেশি সব মাছ স্বীকার বিলুপ্ত হওয়ায়, প্রতিনিয়ত দারিদ্রতার কশাঘাতে অসহায় ও নিরুপায় হয়ে মানবতার জীবন কাটাচ্ছে শ্রমজীবী মানুষ। জনসাধারনের দাবি অচিরে আমাদের এই জননী সমতুল্য খালকে পুর্ণুদ্ধার করে পুটিমারি দক্ষিন পাড়া রাস্তার সাথে খালের সংযোগ স্থান ও অবদা রাস্তার সাথে সংযোগ স্থানে বিশেষায়িত সুইচগেট নির্মাণ করতে কার্যকরি ভুমিকা রাখবে।

     More News Of This Category

ফেসবুক