রুপসার ঘাটভোগে সুনীতি রায় লস্কর কে আবারো মেম্বার হিসেবে দেখতে চাই ওয়ার্ডবাসী

Spread the love

বি.এম.শহিদুল ইসলাম,খুলনা প্রতিনিধি:
রূপসায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ঘাটভোগ ইউনিয়নের ৭,৮,৯-নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্য প্রার্থী সফল মেম্বার সুনীতি রায় লস্কর কে আবারো মেম্বার হিসেবে দেখতে চাই এলাকাবাসী। তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত আসনে কলম প্রতীক পেয়ে জনসাধারণের সঙ্গে কুশল বিনিময় শুরু করেছে।

অন্যদিকে সুনীতি রায় লস্কর কে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করতে প্রস্তুত অত্র ওয়ার্ডের সাধারণ মানুষ।
ভোটারা বলছেন, জনগনের কল্যাণে সম্ভব সব ধরণের কাজে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন।৭.৮.৯ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকার সাধারণ মানুষের কাছ থেকে পাচ্ছেন স্বতঃস্ফুর্ত সাড়া।নির্বাচনী মাঠে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছেন তিনি।
মেম্বার হিসাবে সাধারণ মানুষের আস্থার প্রতিক হয়ে উঠেছিলেন তিনি। বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ, অসহায় দরিদ্র দিনমজুর, গরিব-দুঃখীদের বিভিন্ন সাহায্য নিয়ে ঝাপিয়ে পড়েছেন তিনি।আর এর দ্বারা অব্যহত রাখতে চাই মেম্বার সুনীতি রায় লস্কর।
নির্বাচনের আগে থেকেই দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করে এলাকার,কর্ম হীন হয়ে পড়া অসহায় দরিদ্র মানুষদেরকে খুঁজে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাচ্ছেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, সুখে-দুঃখে সব সময় মেম্বার সুনীতি রায় কে পাশে পাই। তাই এলাকার মঙ্গলের জন্য একজন ভালো স্বজনপ্রীতিহীন, জনদরদী, লোভ-লালসা ও হিংসা বিদ্বেষহীন অত্র ওয়ার্ডের মেম্বার হিসেবে পুনরায় দেখতে চাই।মেম্বার প্রার্থী সুনীতি রায় বলেন, যারা আমাকে ভালবেসে মেম্বার হিসেবে আবারো দেখতে চাইছে। তাদের ভালবাসায় আমি নিজেও প্রস্তুত, যদি আমি জয়ী হই তাহলে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের কাছে নিজের মেধা ও পরিশ্রম দিয়ে আধুনিক উন্নত বাসযোগ্য একটি ওয়ার্ড করার চেষ্টা করবো সকলের সহযোগিতায়। সেইসাথে মাদক, সন্ত্রাস ও অপরাধমুক্ত ওয়ার্ড গড়তে বদ্ধপরিকর।
তিনি আরো বলেন, দল মত নির্বিশেষে নির্বাচনে সকলের ভোটে আমি জয়ী হতে চাই। আমি আপনাদের আর্শিবাদ/ দোয়া চাই। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত আপনাদের পাশে থেকে আপনাদের কাজ করতে চাই।এলাকাবাসীর আর্শিবাদ ও ভালবাসাই হলো আমার চলার পথের শক্তি। আগামী ২৮ তারিখে আমার ওর্য়াডের জনগণ আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে এলাকার উন্নয়ন করার আবারো সুযোগ দিবে।সেই সাথে এলাকার উন্নয়নের দ্বার অব্যহত রাখার জন্য আমি সব সময় বদ্ধপরিকর।

     More News Of This Category

ফেসবুক