সাতক্ষীরায় ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে ৬১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের রেকর্ড

Spread the love

সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ উপকূলীয় জেলা সাতক্ষীরা আবশেষে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবমুক্ত হতে শুরু করেছে । টানা দুই দিন ধরে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টির পর রোববার রাতভর হালকা ও মাঝারি বৃষ্টিপাত হয়েছে। এতে জেলার উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। সোমবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টা থেকে আবহাওয়া পরিস্থিতি উন্নতির দিকে।

সাতক্ষীরা জেলা আবহাওয়া অধিদফতরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জুলফিকার আলী জানান, রাতভর বৃষ্টিপাত হয়েছে। এখনো মাঝে মধ্যে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। রাতে জেলায় সর্বোচ্চ ৬১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এখন থেকে আবহাওয়া পরিস্থিতি উন্নতির দিকে রয়েছে।

সাতক্ষীরার উপকূলীয় অঞ্চল ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবমুক্ত হতে শুরু করেছে। সারাদিনের বৃষ্টিতে সবচেয়ে বিপাকে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষেরা। বিশেষ করে ভ্যান, রিকশা ও দিনমজুর মানুষের বাড়ি থেকে বের হতে পারেনি। শহরে সাধারন মানুষের উপস্থিতি ছিল খুবই কম। এদিকে, জেলার উপকূলীয় নদ-নদীর বেড়িবাঁধ ভাঙনের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। নদীর জোয়ারের পানি স্বাভাবিক রয়েছে।

সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল খায়ের জানান, নদ-নদীর পানি বর্তমান পর্যন্ত স্বাভাবিক রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোথাও নদীর বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি।

কৃষিখাতেও কোনো ক্ষয়ক্ষতির হয়নি বলে জানিয়েছেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক নুরুল ইসলাম। তিনি বলেন, এখন আমন মৌসুম চলছে। জেলায় ৭২ শতাংশ ধান ইতোমধ্যে কাটা শেষ হয়েছে। উপকূলীয় আশাশুনি ও শ্যামনগরে কিছু আমন ধান কাটা বাকি থাকলেও ঝোড়ো হাওয়া না থাকায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

     More News Of This Category

ফেসবুক