জগন্নাথপুর ইউপি নির্বাচনে কতৃপক্ষের গাফিলতির কারণে নিজের কার্ড নিজেরাই লিখে নিলেন সাংবাদিকরা

Spread the love

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি :সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নে আগামীকাল ২৬ ডিসেম্বর রোববার ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন অবাধ ও শান্তিপুর্ন হওয়ার স্বার্থে বিভিন্ন সংস্থার পাশাপাশি কেন্দ্রগুলো পরিদর্শনের জন্য সাংবাদিকদের অনুমতি দেয়া হয়। জগন্নাথপুর ইউপি নির্বাচনের ৩ দিন আগে নির্বাচন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান সাংবাদিকদের আবেদন গ্রহন করলেও অনমতি দিতে গড়িমসি শুরু করেন। ফলে স্থানীয় সাংবাদিক ও বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা সাংবাদিকরা চরম ভোগান্তিতে পড়েন।
এক পর্যায়ে (২৫ ডিসেম্বর) রাত ১০ টায় অফিসে আসেন। কার্ড আছে তো, গাড়ীর স্টিকার নেই বা লেখার লোক নেই বলে নানা টালবাহানা শুরু করেন। পরে সাংবাদিকরা নিজেরাই লিখে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। এতে সিনিয়র সাংবাদিকদের পাশাপাশি প্রায় ৫০ জন লোক সাংবাদিকতার মত মহৎ পেশার কার্ড ভাগিয়ে নিয়ে যান।
এ উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিকতায় নানা গ্রুপে বিভক্ত রয়েছে। প্রেসক্লাব রয়েছে অন্তত ৩ টি।
সেই সুবাদে কিছু লোক অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও নামে-বেনামে পোর্টালের কাগজপত্র সংগ্রহ করে ইউপি নির্বাচনে কেন্দ্র পরিদর্শনের জন্য কার্ড সংগ্রহ করেছে। অতীতে এত নামধারী সাংবাদিক এ উপজেলায় লক্ষ্য করা যায়নি বলে সিনিয়র অনেকেই বলেন।
এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ মুজিবুর রহমান বলেন ঝামেলায় ছিলাম বলেই সাংবাদিকদের কার্ড দিতে দেরি হয়েছে। এরা ( সাংবাদিক) কেন্দ্রে যাইতে চায় বলেই সবাইকে অনুমতি দিয়ে দিলাম।
জগন্নাথপুর প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল মিয়া বলেন, নির্বাচন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমানের দায়ীত্ব অবহেলা ও গাফিলতির কারণে সাংবাদিকরা রাতভর কষ্ট করেছেন। অফিসে কোন শৃংখলা পরিলক্ষিত হয়নি। যাচাই বাছাই ছাড়াই গনহারে সাংবাদিক বা পর্যবেক্ষন কার্ড দেয়া হয়েছে, এ দায়ীত্ব তাকেই নিতে হবে।

     More News Of This Category

ফেসবুক