উৎসবমুখর নির্বাচনের প্রত্যাশা আইভীর

Spread the love

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে সহিংসতা পরিহার করে উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন করার প্রত্যাশা করছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী। তিনি বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জে কোনো নির্বাচন সহিংসতার পর্যায়ে যায়নি। আমি আশা করব, এবারের নির্বাচনেও আমরা সহিংসতা পরিহার করে একটি সুন্দর ও উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন করতে পারব।’ নগরীর ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের জামতলা এলাকায় নির্বাচনী প্রচারে শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ কথা বলেন আইভী।
তিনি আরও বলেন, ‘সিটি করপোরেশনের যে কাজগুলো চলমান রয়েছে, সেগুলো শেষ করতে চাই। পাশাপাশি পরিবেশের ওপর জোর দিয়ে খাল খনন, পুকুর সংরক্ষণ, খেলার মাঠ ও পার্ক করা, এ ধরনের কাজগুলো বেশি করতে চাই। আগামীতে যেন জনগণকে সুপেয় পানি পৌঁছে দিতে পারি, সে ব্যবস্থা করব। ওয়াসার পাইপ অনেক পুরোনো, অনেক আগের। আমি সব পাইপ পরিবর্তন করার কাজ চলমান রেখে এসেছি। আগামীতে এ প্রকল্পের কাজ শেষ করা হবে।’
নগরীর যানজট নিরসনের বিষয়েও কথা বলেন গত দুবারের মেয়র। তিনি বলেন, ‘আপনাদের জানা দরকার, যানজট নিরসনে স্থানীয় সরকারের কিছুই করার নেই। এটা দেখার জন্য ট্রাফিক বিভাগ আছে। তবে তারা নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাছে যে ধরনের সহযোগিতা চায়, তারা তা পায়। যানজট নিরসনে সিটি করপোরেশনের একটি মাস্টার প্ল্যান আছে। কারণ যানজট শুধু এখানে না, সারা দেশের সমস্যা।’
২০১১ সালের অক্টোবর ও ২০১৬ সালের ডিসেম্বরের সিটি নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী আইভী এবার টানা তৃতীয় জয়ের আশায়। এবার তার লড়াই জমবে বিএনপি নেতা তৈমূর আলম খন্দকারের সঙ্গে।
বিএনপি গত নির্বাচনে ধানের শীষ তুলে দিয়েছিল শাখাওয়াত হোসেনের হাতে। তবে এবার আনুষ্ঠানিকভাবে ভোট থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত তাদের। যদিও তৈমূর বিএনপির পুরো সমর্থনই পাচ্ছেন।
শাখাওয়াতসহ দলের দুজন নেতা মেয়র পদে প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েও তা তুলে নিয়েছেন তৈমূরের জন্যই। বিএনপি নেতা দলের প্রতীক না পেয়ে বেছে নিয়েছেন হাতি। তিনি বলছেন, তার মুখমণ্ডলই ধানের শীষ।

     More News Of This Category

ফেসবুক