এনভয় গ্রুপের মালিকানায় থাকছে না কুতুবউদ্দিন, আসছেন নতুন নেতৃত্বে আবদুস সালাম মুর্শেদী।

Spread the love

শেখ মাহাবুব আলমঃ শুরুটাই ছিল গার্মেন্টেস ব্যবসা তাই বিশেষ কোনো কারণ ছিল না নামকরণে। বিদেশে পণ্য যাবে, তাই নাম রাখা হয় এনভয়। কোনো মূলধন ছিল না। মগবাজারে প্রকৌশলী কুতুবউদ্দিনের পরিবারের টিনের বাড়িটি ব্যাংকে বন্ধক রাখা হয়। সে সময় বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অন্যতম সদস্য ও এনভয় গ্রুপের বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুস সালাম মুর্শেদীর সঙ্গে মিলে মোট ২৫ লাখ টাকা পুঁজিতে শুরু হয় পথ চলা।

ব্যবসার প্রথম দিন থেকে একসঙ্গে ছিলেন এনভয়ের দুই কর্ণধার কুতুবউদ্দিন আহমেদ ও আবদুস সালাম মুর্শেদী। ১৯৮৪ সালে পোশাক খাতের মাধ্যমে যাত্রা করা এনভয় গ্রুপের আওতায় রয়েছে এখন ৪০টি প্রতিষ্ঠান। সব মিলিয়ে এসব প্রতিষ্ঠানের বার্ষিক টার্নওভার ৪০ কোটি ডলারেরও বেশি। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির অংশীদারিত্ব ও মালিকানায় পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। শুরু হয়েছে বাস্তবায়নের প্রক্রিয়াও। সংশ্লিষ্টদের তথ্য অনুযায়ী, এনভয়ের পোশাক খাতের ব্যবসার সঙ্গে থাকছেন না কুতুবউদ্দিন আহমেদ। এনভয়ের মালিকানার পূর্ণ নেতৃত্বে আসছেন আবদুস সালাম মুর্শেদী।

সূত্র জানিয়েছে, অংশীদারিত্বে পরিবর্তনের দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়াটি চলমান রয়েছে। রয়্যালটিসহ এনভয় গ্রুপের অধিকাংশ প্রতিষ্ঠান কিনে নিচ্ছেন আবদুস সালাম মুর্শেদী। শুধু পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান এনভয় টেক্সটাইলসের অংশীদারিত্বে থাকছেন কুতুবউদ্দিন ও সালাম মুর্শেদী দুজনই। গ্রুপের অংশীদারিত্বে পরিবর্তন আনতে এরই মধ্যে নিজেদের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে। ডকুমেন্ট স্বাক্ষর হয়েছে, যা অনুসরণ করে টোকেন পেমেন্টও সম্পন্ন হয়েছে। এ-সংক্রান্ত আর্টিকেলস অব অ্যাসোসিয়েশনের কাজ চলছে। প্রয়োজনীয় নথিগুলো সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোয় পেশ হচ্ছে। প্রক্রিয়াগুলো ধীরে ধীরে সম্পন্ন হবে। এক-দুই প্রান্তিকের মধ্যে এসব প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করা সম্ভব হতে পারে।

এনভয় গ্রুপের ওয়েবসাইটের তথ্যমতে, প্রতিষ্ঠানটির মোট কর্মী সংখ্যা প্রায় ২১ হাজার। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদে আটজনের নাম উল্লেখ রয়েছে। গ্রুপের চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন প্রকৌশলী কুতুবউদ্দিন আহমেদ। ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুস সালাম মুর্শেদী। ছয়জন পরিচালক হিসেবে রয়েছেন রাশিদা আহমেদ, শারমিন সালাম, তানভীর আহমেদ, ব্যারিস্টার শেহরিন সালাম ঐশী, ইশমাম সালাম ও সুমাইয়া আহমেদ।

অংশীদারিত্বে পরিবর্তনের বিষয়ে পরিচালকদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বস্ত্র খাতে গ্রুপের ডেনিম প্রতিষ্ঠান এনভয় টেক্সটাইলসে যৌথভাবে অংশীদার থাকছেন কুতুবউদ্দিন ও আবদুস সালাম মুর্শেদী। পাবলিক লিমিটেড কোম্পানির নিয়মেই সেটা চলবে। ব্যবসায় পার্টনারশিপের পরিসমাপ্তি সাধারণভাবে খুব একটা ভালো হয় না। যদিও এনভয়ের ক্ষেত্রে তেমনটি হচ্ছে না বলে দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। তারা বলছেন, এখনো কোনো কিছু পরিবর্তন হয়নি। মালিকানায় পরিবর্তন হবে এমন সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলেও এখনো একই সঙ্গে কাজ চলছে অংশীদারদের, অফিসও করছেন একই ভবনে।

জানা গেছে, এনভয়ের অংশীদারিত্বের মূলে রয়েছে দুটি পরিবার—কুতুবউদ্দিন আহমেদ ও আবদুস সালাম মুর্শেদী। দুই পরিবারেরই দ্বিতীয় প্রজন্ম ব্যবসায় সক্রিয় হতে শুরু করেছে। তাদের প্রত্যেকেরই ভিন্ন ভিন্ন চিন্তাধারা রয়েছে। সেই ভিন্ন চিন্তা ও ভিশনকে বাস্তবে রূপ দেয়ার সুযোগ তৈরি করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে দ্বিতীয় প্রজন্ম যেন মুক্তভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারে, সেই ক্ষেত্র সৃষ্টি করতে একটা পরিবর্তন আসছে। তবে এ নিয়ে কোনো ঝগড়া-বিবাদে নেই দুই পরিবার।

পরিবার সূত্র বলছে, প্রতিষ্ঠান এখন বড় হয়েছে। দুই পরিবারের সন্তানরা বড় হয়েছে। দ্বিতীয় প্রজন্মের মধ্যে নিজস্ব স্বাচ্ছন্দ্যবোধ রয়েছে। তারা যে যার মতো ব্যবসা পরিচালনায় আগ্রহী। এনভয়ের পোশাক খাতের ব্যবসায় থাকছে না কুতুবউদ্দিনের পরিবার। আইটি, ড্রেজিং ব্যবসাগুলো থাকছে আবদুস সালাম মুর্শেদীর।

     More News Of This Category

ফেসবুক