স্ত্রীর গলা কাটা দেহ উদ্ধার, স্বামী আটক

Spread the love

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে।
এ ঘটনায় স্বামী আবুবকর সিদ্দিককে মঙ্গলবার সকালে আটক করেছে পুলিশ। দাম্পত্য কলহের জেরে এই হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি নিহতের পরিবারের।
উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের মাওলানা পাড়া গ্রামে সোমবার রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত গৃহবধূর নাম শাহিদা বেগম। তার বয়স ৪০ বছর।
এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন।
পাইকেরছড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আবু সায়াদাত বজলুর রহমান জানান, প্রায় ২৪ বছর আগে শাহিদার সঙ্গে একই গ্রামের আবু বকর সিদ্দিকের বিয়ে হয়। পেশায় তিনি একজন কাঠ-ব্যবসায়ী। দাম্পত্য জীবনে তাদের ৩টি মেয়ে রয়েছে। তিনি জেনেছেন, গত কয়েক মাস ধরে তাদের মধ্যে কলহ চলছিল।
এর জেরে কিছু দিন আগে শাহিদা ছোট মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসেন। সোমবার রাতে আবু বকর সিদ্দিকও শ্বশুর বাড়িতে আসেন। রাতে খেয়ে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে রাত তিনটার দিকে হঠাৎ আবু বকর ধারালো অস্ত্র দিয়ে শাহিদাকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যান।
শাহিদার চাচা মহির উদ্দিন বলেন, ‘রাত ৩টার দিকে চিৎকার শুনে আমরা এসে দেখি বিছানায় শাহিদার রক্তাক্ত দেহ পড়ে আছে। এ সময় তাদের মেয়েও আহত হয়েছে।’
ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আবু বকর সিদ্দিককে পাশের এলাকা থেকে সকালে আটক করা হয়। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।’

     More News Of This Category

ফেসবুক