চুরির অভিযোগে খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতন, ব্যবসায়ী আটক

Spread the love

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় নারিকেল তেল ও নুডলস চুরির অভিযোগে যুবককে খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতন করায় এক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ।
আলমডাঙ্গা পৌর এলাকার হাফিজ মোড়ের শেখ ট্রেডার্সের মালিক শেখ আমানুল্লাহকে মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে আটক করা হয়। আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম ইবাংলাকে খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয়রা জানান, আমানুল্লাহর বিভিন্ন পণ্যের ডিলারশিপ আছে। মঙ্গলবার দুপুরে শ্রমিকরা গাড়ি থেকে তার দোকানের পণ্য নামাচ্ছিলেন। এ সময় সাদ্দাম হোসেন নামের ২২ বছরের এক যুবক কিছু মালামাল নিয়ে পালিয়ে যান। স্থানীয়রা তাকে ধাওয়া করে আমানুল্লাহর কাছে ধরে আনেন।
তিনি সাদ্দামকে দোকানের খুঁটিতে বেঁধে পাইপ দিয়ে মারধর করেন। অনেকে বিষয়টি ভিডিও করে ফেসবুকে আপলোড করলে তা ভাইরাল হয়। পরে পুলিশ সাদ্দামকে উদ্ধার করে থানায় নেয়।
আমানুল্লাহ বলেন, ‘বিভিন্ন সময় আমার দোকানে চুরি হতো। আমি অতিষ্ঠ ছিলাম। কিছুতেই চোর ধরতে পারতাম না। মঙ্গলবার কিছু নারিকেল তেল ও নুডলসের প্যাকেট চুরির সময় সাদ্দামকে হাতেনাতে ধরে স্থানীয়রা আমার কাছে নিয়ে আসে। তবে তাকে দোকানের খুঁটিতে বেঁধে মারধর করা আমার উচিত হয়নি।’
পরে রাতে আমানুল্লাহকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ।
ওসি সাইফুল দৈনিক বাংলাকে বলেন, ‘নির্যাতনের বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। ফেসবুকে নির্যাতনের ভিডিও দেখেছি। এভাবে কেউ আইন হাতে তুলে নিতে পারেন না। সাদ্দাম যদি চুরি করে তাহলে তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেয়া উচিত ছিল। রাতেই আমানুল্লাহকে জিজ্ঞাসাদের জন্য আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে। নির্যাতনের বিষয়ে সাদ্দাম বা তার পরিবার অভিযোগ করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।’
ওসি জানান, আলমডাঙ্গা পৌর এলাকার থানাপাড়ার সাদ্দামের নামে চুরি ও ছিনতাইয়ের দুটি মামলা আছে। একাধিকবার তাকে আটক করেছে পুলিশ।

     More News Of This Category

ফেসবুক