খুলনা রূপসায় কৃষককে কুপিয়ে জখম, ইউপি সদস্যসহ আটক ৩

Spread the love

খুলনা প্রতিনিধি খুলনার রূপসা উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নে জুলহাস নামে এক কৃষককে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলামসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। মৎস্য ঘেরে প্রবেশ করে মাছ ধরতে বাধা দেওয়ায় এঘটনা ঘটে। কৃষক জুলহাস ভূইয়া ইউনিয়নের গোয়ালবাড়ীর চর গ্রামের রুহুল আমিন ভূইয়ার ছেলে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে রূপসা থানার অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশাররফ হোসেন বলেন, এজাহারনামীয় আসামী (ইউপি সদস্য) মোঃ শফিকুল ইসলাম, (সাবেক ইউপি সদস্য) মনিরুল ইসলাম ফকির ও মোঃ বাচ্চু ফকিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এজাহার সূত্রে জানা গেছে, সোমবার (২৮ মার্চ) সকাল অনুমান ১০টার দিকে ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে এজাহারনামীয় আসামীরাসহ অজ্ঞাত নামা ১৫/২০জন রুহুল আমিন ভূইয়ার ছেলে মোঃ জুলহাস ভুইয়ার পানের বরজের সাথে মৎস্য ঘেরে প্রবেশ করে মাছ ধরতে থাকে। জুলহাস খবর পেয়ে ঘেরে যেয়ে তাদের মাছ ধরতে বাঁধা দেয়। এসময় ইউপি সদস্য ও তার দলবল জুলহাসকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজের একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিশোটা দিয়ে বেধড়ক মারপিট ও দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।
পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার গুরুত্ব জখম অবস্থায় করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এছাড়া ইউপি সদস্য উক্ত মাছের ঘের থেকে সাদা ও চিড়িংসহ বিভিন্ন জাতের মাছ ধরে নিয়ে যায়, যার দাম ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এঘটনায় আহতের ভাই শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখ ও ১৫/২০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

এজাহার নামীয় আসামীরা হল ঘাটভোগ ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নং ওয়ার্ড’র ইউপি সদস্য মোঃ শফিকুল ইসলাম (৪০)। অন্যরা হল আনন্দনগর গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিন ফকিরের ছেলে মোঃ বাচ্চু ফকির (৪৫), মনিরুল ইসলাম(৫৪), মোঃ বাশার (৪০), পিতা-মৃত নজির মোঃ মনিরুল উদ্দিন মাষ্টার, সাং-আনন্দনগর, সেকেন্দার আলী শেখ (৪০), পিতা-কাশেম শেখ, সাং-গোয়ালবাড়ির চর, মোঃ সিরাজুল ফকির @ মন্টু (৪৮), পিতা-ইন্তাজ ফকির, সাং-আনন্দনগর, ইউনুস সরদার (৫৫), পিতা-বেরম সরদার, সাং-আনন্দনগর, মোঃ আনোয়ার ফকির (৪৫), পিতা-রহমান ফকির, সাং- পুটিমারি, আছাবুর মোল্লা (৪৫), পিতা- অজ্ঞাত, সাং-গোয়ালবাড়ির চর (আশ্রয়ন প্রকল্প) সর্ব থানা-রূপসা, জেলা-খুলনা। বাদী জানায় মামলা দায়েরের পর আসামী পক্ষের লোকজন তাকে মারপিট করার চেষ্টা করছে।

     More News Of This Category

ফেসবুক