রূপসায় রবী ঠাকুরের জন্মবার্ষিকীর উদযাপন অনুষ্ঠিত।

ইবাংলা নিজস্ব প্রতিনিধিঃ বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১তম জন্মবার্ষিকী পালন উপলক্ষে গত ৮ মে রূপসার ঘাটভোগ ইউনিয়ন পিঠাভোগ গ্রামে তার পিতৃপুরুষের বসতভিটা পিঠাভোগ রবী ঠাকুর সংগ্রহ শালায় অনুষ্ঠিত হয়।রূপসায় বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মবার্ষিকী সকাল ১০ টায় উদ্বোধন ও আলোচনা সভায় খুলনা বিভাগীয় কমিশনার এনডিসি মোঃ ইসমাইল হোসেন প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে বলেন বাংলা সাহিত্যকে তিনি দিয়ে গেছেন এক নতুন মাত্রা। তার রচিত সঙ্গীত, কবিতা ও গদ্য জড়িয়ে আছে বাঙালির সত্তায়। ১৯১৩ সালে গীতাঞ্জলি কাব্যের জন্য নোবেল পুরস্কার পেয়ে সারা বিশ্বে বাংলা ভাষার মর্যাদা বাড়িয়ে দিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ। বাংলা সাহিত্যে এটিই ছিল একমাত্র নোবেল পুরস্কার। রবীন্দ্রনাথের লেখা গান ‘আমার সোনার বাংলা’ বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত। বাংলাদেশের স্বাধীনতার দীর্ঘ সংগ্রামসহ বিভিন্ন সঙ্কটে রবীন্দ্রনাথের গান ও কবিতা বাঙালিকে যুগিয়েছে সাহস, তার চেতনাকে করেছে শাণিত। তিনি আরও বলেছেন অচিরেই রূপসা উপজেলা শ্লিপকলা একাডেমিক ভবন নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহন করা হবে।
গত ৮ মে রোববার সকালে রবীন্দ্র জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ৩দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান তালুকদার এর সভাপতিত্বে এ সময় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন অতিরিক্ত সচিব সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়ের অসীম কুমার দে, খুলনা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, খুলনা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট পুলক কুমার মন্ডল, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. কামাল উদ্দিন বাদশা।অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন শিক্ষাবিদ ও রবীন্দ্র গবেষক সুশান্ত সরকার এবং স্বাগত বক্তৃতা করেন রূপসা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবাইয়া তাছনিম।কৃষি কর্মকর্তা মোঃ ফরিদুর জামান ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফারহানা ইয়াসমিনের পরিচালনায় সঞ্চালনা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সাজ্জাদ হোসেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা আফরোজ মনা, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাপ্পি কুমার দাস, রুপসা থানা ওসি সরদার মোশারফ হোসেন, শিক্ষা কর্মকর্তা শেখ আব্দুর রব, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আরিফুর রহমান, আইচগাতি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অধ্যাপক আশরাফুজ্জামান বাবুল, রূপসা কলেজের অধ্যক্ষ ফ,ম আঃ সালাম, ঘাটভোগ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোল্লা ওয়াহিদুজ্জামান মিজান, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সদস্য আ: মজিদ ফকির, এসএম হাবিব, মাধ্যমিক কর্মকর্তা আইরিন পারভীন, সমাজসেবা কর্মকর্তার জেসিয়া জামান, পল্লি উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. তারেক ইকবাল আজিজ, মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা প্রমূখ।স্কুলের শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে রবীন্দ্র সংগীত ও শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন সহ সারাদিন বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করেছে রূপসা উপজেলা প্রশাসন।

     More News Of This Category

ফেসবুক