প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খেলার মান ফিরিয়ে আনার জন্য প্রতিটি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম করছে:সালাম মূশের্দী এমপি,

ইবাংলা প্রতিনিধি রুপসাঃ খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি, প্রাক্তন জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক আব্দুস সালাম মুর্শেদী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু নিজে একজন বড় ফুটবলার ছিলেন। তার পরিবারের সবাই ক্রীড়া নৈপুণ্যের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।
বঙ্গবন্ধুর যখন কিশোর বয়স, তখন তিনি ফুটবল টিমের সদস্য ছিলেন। আর তার কন্যা শেখ হাসিনা যখনই ক্ষমতায় এসেছেন তখনই ফুটবল, ক্রিকেটসহ সব খেলায় একটি অসাধারণ বিজয় এসেছে।
বঙ্গবন্ধুর ছেলে আজকের বিখ্যাত আবাহনী ক্রীড়া চক্রের প্রতিষ্ঠাতা। দেশের ক্রীড়া সংগঠনকে গড়ে তুলতে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের ভূমিকা উল্লেখযোগ্য।
লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলার মাধ্যমে কিশোর-কিশোরীদের ক্রীড়া চর্চায় উদ্বুদ্ধকরণ ও শারীরিক, মানসিক ও নান্দনিক বিকাশ ঘটায়।প্রতিযোগীতার মাধ্যমে সহিষ্ণুতা, মনোবল বৃদ্ধি এবং মাদকাশক্তি, জঙ্গিবাদসহ সকল ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ থেকে বিরত রাখার লক্ষ্যেই এ আয়োজন।


তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীন হওয়া এ দেশটি ত্রিশ লাখ শহীদের রক্ত আর দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে স্বাধীন হয়েছে।
আজকের ক্রীড়া জগতে এদেশের মেয়েরা সাফল্য নিয়ে এসেছে। দেশে আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়ন হচ্ছে।
প্রত্যেকটি জেলা-উপজেলায় যাতে খেলা ভালোভাবে চলে সে জন্য মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করছে সরকার। মিনি স্টেডিয়াম সুনির্দিষ্ট কোনো খেলার জন্য না, সব ধরণের খেলার জন্য।
বুধবার (২২ জুন) বিকেলে রূপসা উপজেলা পর্যায়ে ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’র ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
রূপসা উপজেলা শিক্ষা অফিস আয়োজিত কাজদিয়া সরকারি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবাইয়া তাসনিম।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার শেখ আব্দুর রব।পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা, ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা আফরোজ মনা, আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ ফকির।
শিক্ষক এস এম রাকিবুল হকের পরিচালনায় বক্তৃতা করেন সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মতিয়ার রহমান, মন্ডল মধুসূদন, প্রধান শিক্ষক পারভীন সুলতানা, শাহীন আক্তার, নাসরিন লিপি, সালমা বেগম, শেখ সালাউদ্দিন, আব্দুস সাত্তার খান, মাসুদ আলম, সাবানা, সু-মাধরী চক্রবর্তী,শ্যামল দাস, খুরশিদা আলম, সুলতানা জাহান, গোলাম মোস্তফা,শ্যামল মন্ডল, কবিরুজ্জামান, অমিও কুমার বসু,গোলাম হোসেন, রেজাউল ইসলাম, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত দে, রূপসা উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক শেখ প্রমূখ।
ফাইনাল খেলায় (বালক) বাগমারা আদর্শ সরকারী প্রাথমিক বিদ‍্যালয় দল আনন্দনগর ইসলামপুর পুটিমারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দলকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়।অপরদিকে (বালিকা) বাগমারা আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দল আনন্দনগর ইসলামপুর পুটিমারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দলকে পরাজিত করে
চ্যাম্পিয়ন হয়।
খেলা পরিচালনার দায়িত্ব পালন করেন শিক্ষক বাশির আহমেদ লালু, সহকারী পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেন, সুমন রাজু ও গোলাম রসূল।
এসময় বিভিন্ন কর্মকর্তা, সদস্য, ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি এবং বিজয়ী এবং বিজীত টিমের খেলোয়াড়েরা উপস্থিত ছিলেন। শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ টিমের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিরা।

     More News Of This Category

ফেসবুক