খুলনা তেরখাদায় প্রতি পক্ষের হামলায় ৪ জন আহত

তেরখাদা প্রতিনিধিঃ আজ শুক্রবার বিকেল পাঁচটার দিকে কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কুমিরডাঙ্গা বাজার থেকে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক মেম্বার কাজী তরিকুল ইসলাম তরু সহ কমপক্ষে চারজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুত্বার আহত করেছে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা। এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজ বিকেল পাঁচটার দিকে কুমির ডাঙ্গা বাজারে জনৈক কালুর দোকানে ১৫/২০ জনের একটি সংঘবদ্ধ চক্র ব্যবসায়ী কালুর দোকানের ভিতর থেকে প্রথমে পহরডাঙ্গা গ্রামের পিরু ও নাইম হত্যা মামলার সাক্ষী রবুলের পুত্র ইবাদুলকে এবং পিরুর জামাই হাসুকে মারপিট করে। কিছু সময় পরে ইছামতি গ্রামের তরিকুল ইসলাম তরু কাজী তার ভাইয়ের মেয়ের বিয়ের কিছু মালামাল কিনতে তেরখাদায় যাওয়ার পথে কুমির ডাঙ্গা বাজার থেকে চারদিক দিয়ে ঘিরে ফেলে এলোপাতাড়ি মারপিট করে। সে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে অস্ত্রধারীরা তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাঠিপেটা করে। স্থানীয়রা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে তেরখাদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। অস্ত্রধারীরা সন্ধ্যায় একই গ্রুপের মিশকাত নামে আরো একজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। এ ব্যাপারে তরিকুল ইসলাম তরুণ ভাই বাদী হয়ে নয় জনের নাম উল্লেখ সহ আরো অজ্ঞাত ১০/১৫ জনের নামে মামলা দায়ের করেছে। এ ব্যাপারে তেরখাদা থানার ওসি মোহাম্মদ জহুরুল আলম জানান, এ ঘটনার খবর শুনে তিনি দ্রুত ঘটনা স্থলে যান। সেখানে গিয়ে তিনি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনেন। তিনি জানান যারা অপরাধ করেছে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত-পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে৷

     More News Of This Category

ফেসবুক